জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন
জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন
জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন
জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন
জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন
জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন
জাতীয় ভেজাল পতিরোধ ফাউন্ডেশন
জাতীয় ভেজাল পতিরোধ ফাউন্ডেশন

ভেজাল গুড় কারখানায় অভিযান

বস্তায় ভরে কারখানায় রাখা হয়েছে নিম্নমানের পাটালিগুড়। সেখান থেকে গুড়গুলো বের করে ময়লাযুক্ত পাকা মেঝেতে গুড়ো করা হচ্ছে। ঝোলাগুড় রাখা হয়েছে নোংরা পাতিলে। পাতিলের গুড়ে পাওয়া গেল মরা মাছি ও ময়লা আবর্জনা। পাশেই সেসব গুড় কার্টুনে প্রক্রিয়াজাত করা হচ্ছে দেশের বিভিন্ন জেলায় পাঠানোর জন্য। নোংরা আবর্জনার দুর্গন্ধে বিষিয়ে উঠেছে পরিবেশ। – এমন চিত্র পাওয়া গেল একটি গুড় কারখানায়। নাটোরের গুরুদাসপুর পৌরসভার চাঁচকৈড় পুরানপাড়া এলাকায় এমন চারটি ভেজাল গুড় উৎপাদনকারি করাখানায় অভিযান চালিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। পরে ভেজাল মিশ্রিত ১৪৫ লিটার ঝোলাগুড়

খাবারে ভেজাল মেশালে এবার চরম শাস্তি

স্বাধীনতার আগে জওহরলাল নেহরু একবার বলেছিলেন, কালোবাজারিদের ল্যাম্পপোস্টে ঝোলানো উচিত৷ কিন্তু স্বাধীনতার পর প্রথম প্রধানমন্ত্রী তেমনটি করতে পারেননি আইনের অনুশাসন প্রতিষ্ঠা ও তার উপর জনগণের আস্থা স্থাপনের জন্যই৷ কিন্তু মানুষের জীবন-মরণের সঙ্গে সম্পর্কিত বিষয়টিতে একটি কঠোর আইনের জন্য সত্তর বছর অপেক্ষা করতে হল৷ এবার ভেজাল খাদ্য উৎপাদন ও বিক্রিতে শাস্তি আরও কঠোর হচ্ছে৷ হতে পারে যাবজ্জীবন কারাবাস এবং কয়েক লক্ষ টাকা জরিমানা৷ বর্তমানে এই ধরনের অভিযোগের ক্ষেত্রে ছ’মাস পর্যন্ত কারাবাস ও এক হাজার টাকা আর্থিক জরিমানার সংস্থান রয়েছে আইনে৷ তবে ভারতীয় দণ্ডবিধির

মৌসুমেও ভেজাল গুড়

রাজশাহী ব্যুরো : শীত মৌসুম মানে পিঠা পায়েসের মৌসুম। নতুন ধানের চালের সাথে চিনি কিংবা গুড়ের মিশ্রনে তৈরি পায়েস দেখে রসনা সংযত করতে পারবেন এমন মানুষ খুব আছে। আর নবান্নতো শুরু হয় পিঠা পায়েস দিয়ে। এসময় যেমন আমন ধান ওঠে তেমনি আসে মাঠে মাঠে আখ হতে রস। যা দিয়ে চিনি আর গুড় হয়। আর এসময় মেলে খেজুর গাছ হতে কলস কলস ভরা রস। এ রস দিয়ে যেমন পায়েস বানানো যায় তেমনি গুড়ও তৈরী হয়। আল্লাহর কি কুদরত লাঠি ভরা শরবত

ভেজাল নির্মূলে সর্বশক্তি নিয়োগ করতে হবে

মায়ের গর্ভে যখন একটি শিশুর জন্মের প্রক্রিয়া শুরু হয়, সেসময় থেকে পরবর্তীকালে বেড়ে ওঠা এবং মৃত্যু পর্যন্ত মানুষের জন্য খাবার প্রয়োজন। খাদ্য গ্রহণ না করলে মানুষ বাঁচতে পারবে না। কিন্তু বাংলাদেশে বর্তমানে প্রায় সব খাদ্যদ্রব্যেই মেশানো হচ্ছে ভেজাল। একারণে কোন খাবারই এখন আর নিরাপদ নয়। ফলমূলে মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর কার্বাইডসহ নানা বিষাক্ত কেমিক্যাল, মাছে ও দুধে ফরমালিন, চানাচুর-জিলাপিতে মবিল, সবজিতে কীটনাশক, বিস্কুট-আইসক্রিম-জুস-সেমাই-আচার-নুডলস্ এবং মিষ্টিতে টেক্সটাইল ও লেদার রং, পানিতে ক্যাডমিয়াম, লেড, ইকোলাই, লবণে সাদা বালু, চায়ে করাতকলের গুঁড়ো, গুঁড়ো মসলায়

বায়ু দূষণ ও ভেজাল খাদ্যে মানুষ রোগাক্রান্ত হচ্ছে…আমু

বায়ু দূষণ ও খাদ্যে ভেজালের কারণে বাংলাদেশের মানুষ বেশি রোগাক্রান্ত হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। বৃহস্পতিবার ‘বাংলাদেশে ভোজ্যতেল সমৃদ্ধকরণ’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় নির্বাচিত ভোজ্যতেল রিফাইনারিগুলোর কাছে আই-চেক ক্রোমা নামক মেশিন বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, এর প্রতিরোধে বর্তমান সরকার জনসচেতনতা সৃষ্টির পাশাপাশি আইন কাঠামো জোরদার করেছে। ভোক্তা পর্যায়ে ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধ ভোজ্যতেলের সরবরাহ নিশ্চিত করতে ভোজ্যতেলে ভিটামিন-এ সমৃদ্ধকরণ আইন, ২০১৩ এবং এ বিষয়ক বিধিমালা-২০১৫ প্রণয়ন করা হয়েছে। এর আওতায় দেশব্যাপী বিএসটিআইর

বায়ু দূষণ ও ভেজাল খাদ্যে মানুষ রোগাক্রান্ত হচ্ছে…আমু

বায়ু দূষণ ও খাদ্যে ভেজালের কারণে বাংলাদেশের মানুষ বেশি রোগাক্রান্ত হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। বৃহস্পতিবার ‘বাংলাদেশে ভোজ্যতেল সমৃদ্ধকরণ’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় নির্বাচিত ভোজ্যতেল রিফাইনারিগুলোর কাছে আই-চেক ক্রোমা নামক মেশিন বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, এর প্রতিরোধে বর্তমান সরকার জনসচেতনতা সৃষ্টির পাশাপাশি আইন কাঠামো জোরদার করেছে। ভোক্তা পর্যায়ে ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধ ভোজ্যতেলের সরবরাহ নিশ্চিত করতে ভোজ্যতেলে ভিটামিন-এ সমৃদ্ধকরণ আইন, ২০১৩ এবং এ বিষয়ক বিধিমালা-২০১৫ প্রণয়ন করা হয়েছে। এর আওতায় দেশব্যাপী বিএসটিআইর

অভিযান জরিমানাতেও থামছে না ভেজালরেv

বাজার, দোকান, সুপারশপ— কোথাও ভেজালমুক্ত খাদ্যপণ্য মিলছে না। মাছেও ফরমালিন, দুধেও ফরমালিন। ফল-ফলাদিতে দেওয়া হচ্ছে কার্বাইডসহ নানা বিষাক্ত কেমিক্যাল। শাকসবজিতে রাসায়নিক কীটনাশক, জিলাপি-চানাচুরে মবিল। ব্রেড, বিস্কুট, সেমাই, নুডলসসহ সব রকম মিষ্টিতে টেক্সটাইল-লেদারের রং, মুড়িতে ইউরিয়া-হাইড্রোজেনের অবাধ ব্যবহার চলছে। শিশুখাদ্য দুধও ভেজালমুক্ত রাখা যাচ্ছে না। অতিরিক্ত রেডিয়েশনযুক্ত গুঁড়াদুধ আমদানি হচ্ছে দেদার, ছানার পরিত্যক্ত পানির সঙ্গে ভাতের মাড়, এরারুট আর কেমিক্যাল মিশিয়ে প্রস্তুতকৃত সাদা তরল পদার্থকে ‘গাভীর দুধ’ বলে সরবরাহ করা হচ্ছে। নোংরা পানি ব্যবহারের মাধ্যমে আইসক্রিম বানানো হচ্ছে ময়লা-আবর্জনার স্যাঁতস্যাঁতে পরিবেশে।

মৌসুমেও ভেজাল গুড়মৌসুমেও ভেজাল গুড়মৌসুমেও ভেজাল গুড়মৌসুমেও ভেজাল গুড়

রাজশাহী ব্যুরো : শীত মৌসুম মানে পিঠা পায়েসের মৌসুম। নতুন ধানের চালের সাথে চিনি কিংবা গুড়ের মিশ্রনে তৈরি পায়েস দেখে রসনা সংযত করতে পারবেন এমন মানুষ খুব আছে। আর নবান্নতো শুরু হয় পিঠা পায়েস দিয়ে। এসময় যেমন আমন ধান ওঠে তেমনি আসে মাঠে মাঠে আখ হতে রস। যা দিয়ে চিনি আর গুড় হয়। আর এসময় মেলে খেজুর গাছ হতে কলস কলস ভরা রস। এ রস দিয়ে যেমন পায়েস বানানো যায় তেমনি গুড়ও তৈরী হয়। আল্লাহর কি কুদরত লাঠি ভরা শরবত

ভেজাল নির্মূলে সর্বশক্তি নিয়োগ করতে হবে

মায়ের গর্ভে যখন একটি শিশুর জন্মের প্রক্রিয়া শুরু হয়, সেসময় থেকে পরবর্তীকালে বেড়ে ওঠা এবং মৃত্যু পর্যন্ত মানুষের জন্য খাবার প্রয়োজন। খাদ্য গ্রহণ না করলে মানুষ বাঁচতে পারবে না। কিন্তু বাংলাদেশে বর্তমানে প্রায় সব খাদ্যদ্রব্যেই মেশানো হচ্ছে ভেজাল। একারণে কোন খাবারই এখন আর নিরাপদ নয়। ফলমূলে মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর কার্বাইডসহ নানা বিষাক্ত কেমিক্যাল, মাছে ও দুধে ফরমালিন, চানাচুর-জিলাপিতে মবিল, সবজিতে কীটনাশক, বিস্কুট-আইসক্রিম-জুস-সেমাই-আচার-নুডলস্ এবং মিষ্টিতে টেক্সটাইল ও লেদার রং, পানিতে ক্যাডমিয়াম, লেড, ইকোলাই, লবণে সাদা বালু, চায়ে করাতকলের গুঁড়ো, গুঁড়ো মসলায়

চট্টগ্রামে বিদেশি ব্যান্ডের মোড়কে বিক্রী হচ্ছে ভেজাল প্রসাধনী

চট্টগ্রামে বিদেশি র্ব্যান্ডের মোড়কে বিক্রী হচ্ছে ভেজাল প্রসাধনী। ফুটপাত থেকে শুরু করে অভিজাত মার্কেটগুলোতেও বিক্রি হচ্ছে এসব মানহীন পণ্য। এতে প্রতারিত হচ্ছে ক্রেতারা। আক্রান্ত হচ্ছে নানা রকম ত্বক রোগে। অনুসন্ধানে দেখা গেছে, বিশ্বমানের ব্র্যান্ড গার্নিয়ার, লরেল, রেভলন, হেড এ্যান্ড শোল্ডার, লাক্স লোশন, মাস্ক লোশন, এ্যাকুয়া মেরিন লোশন, পেনটিন, নিভিয়া লোশন, ফেড আউট ক্রিম, ডাভ সাবান, ইমপেরিয়াল সাবান। সুগন্ধির মধ্যে হুগো, ফেরারি, পয়জন, রয়েল, হ্যাভক ও কোবরা। অলিভ অয়েল, কিওকারপিন, আমলা, আপটার সেভ লোশন, জনসন, ভ্যাসেলিন হেয়ার টনিক, জিলেট ফোম, প্যানটিক