জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন
জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন
জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন
জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন
জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন
জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন
জাতীয় ভেজাল পতিরোধ ফাউন্ডেশন
জাতীয় ভেজাল পতিরোধ ফাউন্ডেশন

চট্টগ্রামের রহমানিয়া বেকারিকে জরিমানা নষ্ট শিরা, পোড়া তেলে জিলাপি, নিমকি

বিশাল কড়াইয়ে পোড়া কালচে তেল। দেখে বোঝার উপায় নেই যে এটি তেল না মবিল। নিচে জমেছে গাদ। রোজ এমন তেলেই ভাজা হচ্ছিল জিলাপি, নিমকি। খাবারে মেশানো হতো মেয়াদোত্তীর্ণ রং। কারখানার পরিবেশও অপরিচ্ছন্ন। এই চিত্র চট্টগ্রামের গোসাইলডাঙ্গার কে বি দোভাষ লেন এলাকার রহমানিয়া বেকারির কারখানার। গতকাল সোমবার কারখানায় অভিযান চালিয়ে দুই লাখ টাকা জরিমানা করেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানে নেতৃত্ব দেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মাদ রুহুল আমীন। তিনি বলেন, বেকারিটিতে ব্যবহৃত সব পণ্যই নিম্নমানের। খাবারে যে রং ব্যবহার

ডিজিল্যাব ও আল হেলালকে জরিমানা

অনুমোদন ছাড়া ব্লাডব্যাংক চালানোসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে রাজধানীর মিরপুরে দুটি বেসরকারি হাসপাতালকে ১১ লাখ ৭০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন র্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল সোমবার পৃথক অভিযান চালিয়ে এই জরিমানা করা হয়। র্যাব সূত্র জানায়, গতকাল দুপুর সাড়ে ১২টায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিনের নেতৃত্বে র্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত কাফরুল থানার সেনপাড়া পর্বতায় আল হেলাল স্পেশালাইজড হাসপাতালে অভিযান চালান। এতে র্যাব-২-এর একটি দল অংশ নেয়। এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালত হাসপাতালটিতে অনুমোদনহীন ব্লাডব্যাংক পরিচালনা, প্লাজমা সংরক্ষণ ফ্রিজ না থাকা, মেয়াদ উত্তীর্ণ রি-এজেন্ট রাখা,

হলুদের বদলে রং দিয়ে রান্না, খাবার খেয়ে ২০ ছাত্র হাসপাতালে

কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারিতে হলুদের বদলে বুনদিয়া তৈরির রং দিয়ে রান্না করা খাবার খেয়ে ২০ ছাত্র অসুস্থ হয়ে পড়েছে। তারা স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার পাইকের ছড়া ইউনিয়নের পাটেশ্বরী হামিউচ্ছুন্নাহ বরকতিয়া মাদ্রাসায়। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মামুন ভুইয়া (চ:দা:)সহ অভিভাবকরা ঘটনাস্থলে ছুটে যান। মাদ্রাসার সুপার রমজান আলী জানান, শনিবার দুপুরে উপজেলার বাড়াইটারী গ্রামের জনৈক আলহাজ্জ্ব সেকেন্দার আলী মাদ্রাসার ছাত্রদের জন্য ধর্মীয় মান্নাতের মাধ্যমে কুরবাণি করা কিছু গরুর মাংস দেন। মাংস রান্নার জন্য ওই এলাকার ডিপেরহাট দোকান থেকে বছির উদ্দিনের

চার ফার্মেসিকে ৬৫ হাজার টাকা জরিমানা

বোয়ালখালীর ৪ ফার্মেসিকে ৬৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। সোমবার উপজেলার কানুনগোপাড়া বাজারে এ অভিযানে নেতৃত্ব দেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দেওয়ান মো. তাজুল ইসলাম। এ সময় ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধায়ক মাকনুন তাবাসসুম উপস্থিত ছিলেন। মো. তাজুল ইসলাম জানান, অভিযানকালে মেয়াদোত্তীর্ণ ও অননুমোদিত ওষুধ বিক্রি, ড্রাগ লাইসেন্স না থাকা কিংবা নবায়ন না করা এবং ফিজিশিয়ান স্যাম্পল বিক্রির অপরাধে মেসার্স ইউনিভার্সেল মেডিক্যাল সেন্টার, মেসার্স রানি মেডিকো, মেসার্স শিমুল মেডিকো ও মেসার্স পপুলার ফার্মেসিকে (ড্রাগ অ্যাক্ট-১৯৪০ এবং ১৯৪৬) চারটি

ভজোল খাদ্যে ক্যান্সার ঝুঁকি বাড়ছে শশিুদরে

দশ বছররে শশিু রাজু হোসনে। বাড়ি মানকিগঞ্জরে আরচিায়। বাবা মহদিুল ইসলাম কৃষকিাজ করনে। আর মা হাজরো খাতুন গৃহণিী। এমনতিইে টানাটানরি সংসার। তার উপর একমাত্র ছলেরে হয়ছেে ব্লাড ক্যান্সার। জমজিমা নইে, থাকনে পররে জায়গায়। সম্পদ বলতে ছলি একটা ঘর। ছলেরে চকিত্সিা করাতে এসে সটোও বক্রিি করছনে। র্বতমানে চকিত্সিাধীন রয়ছেনে ঢাকা মডেক্যিালরে শশিু বভিাগ।ে সুস্থ হবে এমন নশ্চিয়তা দতিে পারছনে না চকিত্সিকরা। এভাবে রাজু হোসনেরে মতো ক্যান্সারে আক্রান্ত শশিুর সংখ্যা আশঙ্কাজনক হারে বড়েইে চলছে।ে গতকাল ঢাকা মডেক্যিালরে শশিু বভিাগে গয়িে দখো যায়,

ল্যাকটোজেনের প্যাকেটে জ্যান্ত পোকা,ফের বিপাকে নেসলে

ফের বিপাকে নেসলে। এবার উত্তরপ্রদেশের গাজিয়াবাদে ল্যাকটোজেনের প্যাকেটে মিলল জ্যান্ত পোকা। সন্দেহজনক একটি দোকানে হানা দিয়ে শিশু খাদ্য ল্যাকটোজেনের প্যাকেট সিল করল খাদ্য ও ড্রাগ বিভাগের কর্মকর্তারা। শচিন শর্মা এবং মীনু শর্মা কয়েক দিন আগে তাঁদের সন্তানের জন্য বেশ কিছু ল্যাকটোজেন পাউডারের বক্স কিনেছিলেন। এর মধ্যে একটি প্যাকেট শেষও হয়ে গিয়েছে। দ্বিতীয় প্যাকেটটি খুলতেই আতকে উঠেন তাঁরা। পাউডারের মধ্যে জ্যান্ত পোকা ঘুরে বেড়াতে দেখেন ওই দম্পতি। এর পরই বিষয়টি নিয়ে খাদ্য বিভাগে অভিযোগ জানান তাঁরা। অভিযোগ পেয়েই ওই দোকানে হানা

বাকলিয়ায় ১০ ফার্মেসি থেকে সরকারি ওষুধ জব্দ

সরকারি ওষুধ বিক্রিয় দায়ে নগরীর চাক্তাই ও তুলাতলী এলাকায় ১০টি ফার্মেসিকে ৮২ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়া ভারতীয় বিক্রয় নিষিদ্ধ ওষুধ, ফুড সাপ্লিমেন্ট ও ফিজিশিয়ান স্যাম্পল পাওয়া গেছে এসব ফার্মেসিতে।আজ শনিবার নগরীর বাকলিয়া থানার নতুন চাক্তাই এবং হাজেফ নগর তুলাতলী এলাকায় চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার রুহুল আমীন এ অভিযান পরিচালনা করেন।তিনি বলেন, ১০টি ফার্মেসিতে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমান সরকারি ওষুধ জব্দ করা হয়েছে। এরমধ্যে পাঁচটি ফার্মেসির মালিক ভ্রাম্যমাণ আদালতের উপস্থিতি টের পেয়ে দোকানে তালা দিয়ে পালিয়ে যান।সরকারি

খাদ্যে ভেজাল: আমরা কি বাঁচব না?

 ভেজালে ছেয়ে গেছে দেশ। বোধ করি খাদ্যে এমন ভেজাল আর কোনো দেশেই নেই। ছোট বেলায় আমার চাচা বলতেন, ‘বাবারে! কম খাবি তো বেঁচে যাবি।’ তার কথা কম খাবারে কম ভেজাল; আর তাতেই তার দৃষ্টিতে বেঁচে যাওয়া। তিনি বেঁচে নেই, অর্ধজীবন পার না করতেই ক্যানসার আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। তার কথার মমার্থ এখন হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছি। ২২ অক্টোবরের খবরটা ছিল খুবই বেদনাদায়ক। যখন কলেজে পড়ি তখন এক বন্ধুর সঙ্গে খুব ভাব হয়েছে আমার। সে ছিল আমার জানের দোস্ত। ফুসফুসে ক্যানসারে

বিসিক শিল্প নগরীতে সন্ধান মিলল দুই ভেজাল সার কারখানার

 নীলফামারীর সৈয়দপুরে দুইটি ভেজাল জৈব সার কারখানার সন্ধান মিলেছে। আজ (সোমবার) বিকেলে বিসিক শিল্প নগরীতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ওই ভেজাল কারখানার সন্ধান পাওয়া গেছে। জানা গেছে, সৈয়দপুর বিসিক শিল্পনগরীতে গ্রীণ জৈব সার ও অপূর্ব জৈব সার নামের দুইটি সার কারখানা দীর্ঘদিন যাবৎ ভেজাল জৈব সার উত্পাদন করে বাজারজাত করে আসছিল। গ্রীণ জৈব সার ও অপূর্ব জৈব কারখানা দুইটির মালিক হচ্ছেন যথাক্রমে মো. হামিদুল ইসলাম ও মো. আনিছুল ইসলাম চৌধুরী। আর গোপন সূত্রে খবর পেয়ে সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো.

মধ্যমগ্রামে ভেজাল সিমেন্টসহ গ্রেপ্তার ৩, নামী কোম্পানির বস্তায় ভরা হত গঙ্গা মাটি

নামী কোম্পানির সিমেন্ট ভরতি বস্তা থেকে অর্ধেক মাল বার করে মেশানো হচ্ছে গঙ্গামাটি ও কারখানার ছাই। তারপর ফের কোনও নামী কোম্পানির ছাপ মারা বস্তায় ভরে সেই ভেজাল সিমেন্ট চলে যাচ্ছে খোলা বাজারে। বাইরে থেকে দেখে বিন্দুমাত্র বোঝার উপায় নেই—আসল না নকল। ভেজাল সিমেন্ট তৈরির কারবারে যুক্ত থাকার অভিযোগে তিনজনকে গ্রেপ্তার করে এই জালচক্রের সন্ধান পেয়েছে মধ্যমগ্রাম থানার পুলিশ। সেই সঙ্গে এক ম্যাটাডোর ভরতি প্রায় ১০০ বস্তা ভেজাল সিমেন্টও রাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। ওইগুলি বাইরে বিক্রির নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। পুলিশ সূত্রে জানা