জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন
জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন
জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন
জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন
জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন
জাতীয় ভেজাল প্রতিরোধ ফাউন্ডেশন
জাতীয় ভেজাল পতিরোধ ফাউন্ডেশন
জাতীয় ভেজাল পতিরোধ ফাউন্ডেশন

ভেজাল খাদ্য মজুদে আগোরা’য় জরিমানা

ভেজাল খাদ্য মজুদ করার অভিযোগে চেইন শপ আগোরা কর্তৃপক্ষকে তিন লাখ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। শনিবার রাজধানীর ধানমণ্ডি ২৭ নম্বরের আগোরা শাখায় ভ্রাম্যমাণ আদালত কর্তৃক পরিচালিত অভিযানে এই জরিমানা করা হয়। অভিযানটির নেতৃত্বে ছিলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন। ভেজালমুক্ত খাবার নিশ্চিত করতে এখন থেকে নিয়মিত এই অভিযান চালানো হবে। খাদ্যে ভেজাল পাওয়া গেলেই জরিমানা এবং আইনগত শাস্তির ব্যবস্থাও করা হবে। এ ব্যাপারে সাঈদ খোকন বলেন, আমরা নিরাপদ খাদ্য আইন ২০১৩-এর আওতায় অভিযান পরিচালনা শুরু করেছি।

খাদ্যে ভেজালের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান

ভেজাল এবং ওজন ….টমেটো থেকে আলু, কলা, ফুলকপি, বাঁধাকপি, সাকসব্জি Ñ সবকিছুতে প্রায়ই থাকে রাসায়নিকের ছোবল। কোনোটিকে পাকানোর জন্য, কোনোটিকে তাজা রাখার জন্য রাসায়নিক দ্রব্য ব্যবহার করা হচ্ছে। মানবশরীরের জন্য এইসব রাসায়নিক ক্ষতিকর। ক্রেতা অধিকার সংরক্ষণ নামের একটি সংস্থা বার বার জন-সচেতনতা সৃষ্টির চেষ্টা করে যাচ্ছে। জনসাধারণেরও যেন কোনো ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া নেই। জাতি যেন সব ব্যাপারেই পথহারা পথিক। সরকারের পক্ষ থেকে এর বিরুদ্ধে প্রতিকারের উদ্যোগ লক্ষ করার মতো। সাম্প্রতিক সময়ে ভেজাল বিরোধী অভিযান জোরদার করা হয়েছে এবং শাস্তিও দেয়া হচ্ছে। খাদ্যে

ভেজাল খাদ্য সম্পর্কে অভিযোগ করলেই আয়!

চারপাশে হাজার রকম খাবারের পসরা বসিয়েছেন দোকানী কিংবা রেস্টুরেন্ট মালিকরা। এতোসব খাবারের ভিড়ে কোনটা আসল খাবার খুঁজে পাওয়া কষ্টকর। নিয়মিত পর্যবেক্ষণ না হওয়ায় এসব খাবারের মান বাড়ানোর চেয়ে দাম বাড়াতেই ব্যস্ত ব্যবসায়ীরা। তাই সচেতন হোন এখনই। কোথাও কোনো ভেজাল ও বাসি খাবার দেখলে লিখিত অভিযোগ করুন। আর লিখিত অভিযোগ প্রমাণ হলেই অর্থদণ্ডের ২৫ শতাংশ অর্থ প্রণোদনা হিসেবে পেয়ে যাবেন আপনি। ২০১৩ সালের নিরাপদ খাদ্য আইনের ৬৬ ও ৭৮ ধারায় বলা হয়েছে, আপনার নিকট ভেজাল, দূষিত বা অনিরাপদ খাদ্য বিক্রয় করা

সাবধান! বাজারে নকল বাঁধাকপি

বাজারে নকল ডিম। তা নিয়ে কিছুদিন আগে বেশ হইচই। চীনের তৈরি সেই নকল ডিমে বাজার সয়লাব। তা নিয়ে রীতিমতো সবাই উদ্বিগ্ন। নকল ডিমের রেশ কাটতে না কাটতেই এবার বাজারে নকল বাঁধাকপি। বাংলাদেশে মূলত বাঁধাকপি শীতকালীন একটি সবজি। কিন্তু প্রযুক্তির কল্যাণে যদি বাঁধাকপি বানানো শুরু হয় তবে শীত কি গরম কিংবা বর্ষা নকল বাঁধাকপি বাজারে ১২ মাসই পাওয়া যাবে। এখনো বাংলাদেশের বাজারে নকল বাঁধাকপি দেখা না মিললেও সেই সময় বেশি দূরে, নকল বাঁধাকপি পয়সা দিয়ে কিনেই খেতে হবে। প্রযুক্তি পণ্য তৈরিতে

সাবধান বাজারে প্লাস্টিক চাল!এবার এশিয়ার বাজার সয়লাব

বাজার ছেয়ে যাচ্ছে একের পর এক নকল ও ভেজাল আবিস্কারে। নকল পণ্য না হয় স্বাস্থ্যের জন্য কম ক্ষতিকর কিন্তু যদি হয় সেটা খাবার চাল তাহলে তাতে মৃত্যু অবধারিত। কিছুদিন আগে ছিল নকল ডিম নিয়ে মানুষের মধ্যে শঙ্কা, এটার রেশ কাটতে না কাটতেই বাজারে আসল নতুন আতঙ্ক নকল চাল! আসল চালের মত দেখতে হুবহু নকল প্লাস্টিকের তৈরি এই খাবার চাল। অভিযোগে জানা যায়, ভারতের বাজারে দেদারসে বিক্রি হচ্ছে এই সস্তা চাল। সম্প্রতি ভারতের কেরালায় এমন নকল চাল প্রথমে অনেকের নজরে আসে

বাজারে নকল ডিম, হুমকীতে জনস্বাস্থ্য, বিপাকে ক্রেতা

ডিমেও ভেজাল! আশ্চর্য্যজনক হলেও ঘটনাটি সত্য। বর্তমানে প্রায় প্রতিদিনই ভারত থেকে আসছে বাংলাদেশে। আর কৃত্রিম এ ডিম রাসায়নিক পদার্থ দিয়ে তৈরি চীনের। ক্ষতিকর এসব ডিমে সয়লাব হচ্ছে বাংলাদেশের বাজার। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র থেকে প্রকাশিত বিজ্ঞান সাময়িকী ‘দ্য ইন্টারনেট জার্নাল অফ টক্সোকোলজি’ তে কৃত্রিম ডিম সম্পর্কে বিশ্লেষণধর্মী তথ্য ও বিভিন্ন সূত্রে জানা যায় এ তথ্য। প্রতিনিয়ত সীমান্ত দিয়ে জীবন বিধ্বংসী এই নকল ডিম চোরাই পথে বাংলাদেশে আসছে। আর এক ধরনের অসাধু ব্যবসায়ী ফার্মের হাঁস-মুরগির ডিমের আড়ালে বাজারজাত করছে এই নকল ডিম। রাজধানীর

রাজধানীতে ভেজাল ডিমের সয়লাব

বেশ কয়েকদিন যাবত গণমাধ্যমে আলোচিত হচ্ছিল চীনে ভেজাল ডিম তৈরি হচ্ছে। কিন্তু এটি এখন স্বয়ং রাজধানী ঢাকার বুকে। বড় বড় দোকানগুলোসহ রাস্তার পাশের দোকানেও ভেজাল ডিমের সয়লাব হয়ে গেছে। শুক্রাবাদে একটি দোকানে ডিম খাইতে গেলে দেখা যায় ডিমের কুসুমগুলো সাদা। খেতে রাবারের মতো। স্বাদ বিহীন। তবে আকারে অন্যান্য ডিমের তুলনায় বড়। সানি নামের একজন ক্রেতা বলেন, আমি প্রতিদিনই রাস্তার পাশের দোকান থেকে ডিম খাই। আজও তার ব্যতিক্রম হয়নি। তবে ডিমটি হাতে নেয়ার পর কেমন যেন সন্দেহ হয়। তখনি দোকানদারকে জিজ্ঞাসা

ভেজাল ওষুধ নকল মোড়কে

বড় কোম্পানির বহুল ব্যবহৃত ওষুধ নকল হচ্ছে বেশি * সাম্প্রতিক অভিযানে জব্দ হয়েছে দুই ট্রাক ভেজাল ওষুধ পাইকারি ও খুচরা বাজারে অতি প্রয়োজনীয় ও বহুল ব্যবহৃত বেশকিছু ওষুধের মোড়ক ও প্যাকেট হুবহু নকল করে বিক্রি হচ্ছে ভেজাল ওষুধ। প্যাকেট, লেভেল ইত্যাদি দেখতে অবিকল আসল ওষুধের মতো হলেও ভেতরের ওষুধ নকল। সাধারণ ক্রেতার পক্ষে যাচাই করে এসব ভেজাল ওষুধ নির্ণয় করা অসম্ভব। সম্প্রতি ওষুধ প্রশাসন অধিদফতর পরীক্ষা করে বেশ কিছু নকল ওষুধ বাজারজাতকরণ ও বিক্রির বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। অন্যদিকে আসল ভেবে

সিলেটের পানসী ও পাচঁ ভাই রেষ্টুরেন্টে ভেজাল খাবার : জরিমানা আদায়

সলমান আহমদ চৌধুরী,সুরমা ভিউ২৪ রিপোর্ট : তুলনামূলক কম খরচে সুস্বাদু খাবারের জন্য সুনাম অর্জন করলেও ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে বের হয়ে আসলো রেস্টুরেন্ট দু’টির অন্দরমহলের আসল চিত্র। সিলেটের জল্লারপাড়েই এই দুই রেস্টুরেন্ট অবস্থিত। আজ মঙ্গলবার দুপুরে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনাকারীরা অভিযান চালিয়ে রেস্টুরেন্ট দুইটি’র পরিবেশ ও খাবারে মান দেখেন।অভিযানের পর তারা জানান,এই দুই রেষ্টুরেন্টের খাবারের মান এবং পরিবেশ খুবই অস্বাস্থ্যকর।যা প্রতিটি মানুষের জন্য হুমকী স্বরূপ। অভিযানকারীরা রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে জরিমানা আদায় করেন। একই ফ্রিজে কাঁচা ও রান্না করা মাংস রাখার অপরাধে

৩৬ শতাংশ ক্যান্সারের কারণ ভেজাল ও ফরমালিনযুক্ত খাবার

`বর্তমানে বাংলাদেশের ৫০ শতাংশ মানুষ ক্যান্সারের জীবাণু বহন করছে। এর মধ্যে ৩৬ শতাংশ ভেজাল খাদ্য গ্রহণের কারণে আক্রান্ত হয়ে থাকে।’ সোমবার রাজধানীর ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) ‘রমজান মাসে রকমারি ইফতার নিরাপদ খাদ্যের আলোকে’ শীর্ষক আলোচনা সভায় এই তথ্য জানানো হয়।   আলোচনা সভায় কনজ্যুমার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ক্যাব) সভাপতি ও দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) প্রাক্তন চেয়ারম্যান গোলাম রহমান বলেন, ‘আমাদের কোনো ইফতার নিরাপদ নয়। যেটা আজকের আলোচনা থেকে প্রমাণিত হলো। তাই বলে আমরা ইফতার খাওয়া কী বন্ধ করে দেব? আমাদের